ইউক্রেনে চেচেন সেনাদের জড়ো হওয়ার নির্দেশ

চেচনিয়া রিপাবলিকের সেনাদের ইউক্রেনে জড়ো হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন রাশিয়ার সেনা কমান্ডাররা। যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনভিত্তিক যুদ্ধবিষয়ক সংস্থা স্টাডি অব ওয়ার বৃহস্পতিবার (১ জুন) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বাখমুত থেকে ওয়াগনার সেনারা চলে যাওয়ার পর এখন ইউক্রেন যুদ্ধে নেতৃত্ব দিতে চেচেন সেনাদের মোতায়েন করা হচ্ছে। সংস্থাটি আরও জানিয়েছে, বুধবার চেচনিয়া রিপাবলিকের নেতা রমজান কাদিরভ জানিয়েছেন, তিনি সেনা কমান্ডারদের কাছ থেকে দোনেৎস্ক অঞ্চলের দায়িত্ব নেওয়ার নির্দেশনা পেয়েছেন। দোনেৎস্কের কয়েকটি অঞ্চল ‘স্বাধীন’ করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তাকে। আর এ নির্দেশনা অনুযায়ী তার সেনারা সম্মুখ যুদ্ধে লড়াই করবে। এই দোনেৎস্কেই রয়েছে বাখমুত শহর। যে বাখমুত দখলে দীর্ঘ ১০ মাস লড়াই করেছে ওয়াগনার সেনারা। রমজান কাদিরভ আরও জানিয়েছেন, ইউক্রেনীয় সেনাদের সম্ভাব্য পাল্টা আক্রমণের আগেই তার চেচেন বাহিনীর স্পেশাল ফোর্স উল্টো আক্রমণ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। স্টাডি অব ওয়ার আরও জানিয়েছে, ‘চেচেন সেনাদের যুদ্ধে ফেরার যে বিষয়টি বলা হচ্ছে; যদি এটি সত্যি হয় তাহলে গত এক বছর ধরে ইউক্রেন যুদ্ধের সম্মুখভাগ থেকে দূরে থাকা রমজান কাদিরভের বিরতির অবসান হবে।’ চেচেন সেনারা রক্তক্ষয়ী মারিউপোল, সেভেরোদোনেৎস্ক এবং লিশিচান্সক যুদ্ধ অংশ নেওয়ার পর যুদ্ধের সম্মুখভাগের পেছনে কাজ করছিল। সংস্থাটি আরও বলেছে, ‘খুব সম্ভবত রাশিয়ার কমান্ডাররা এখন মনে করছে চেচেন সেনারা ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চলে রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণ পুনরায় প্রতিষ্ঠিত করতে সমর্থ হবে।’ তবে সংস্থাটি সঙ্গে এও জানিয়েছে, বর্তমানে বলা হচ্ছে ইউক্রেনে ৭ হাজার চেচেন সেনা রয়েছে। যদি এ খবরটি সঠিক হয় তাহলে এই সেনা দিয়ে যুদ্ধে বড় কোনো প্রভাব ফেলতে পারবে না চেচেনরা। এদিকে চেচেন সেনাদের আবারও যুদ্ধের সম্মুখভাগে এমন সময় ফেরানো হচ্ছে যখন রাশিয়ার সীমান্তবর্তী অঞ্চলগুলোতে নিয়মিত হামলা হচ্ছে।