গোপালগঞ্জে ছাত্রীকে ধর্ষণ, অধ্যাপক গ্রেপ্তার

গোপালগঞ্জ সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজের ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গোলাম মোস্তফাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের এক শিক্ষার্থীকে বাসায় ডেকে ধর্ষণের অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সোমবার (৮ মে) রাতে জেলা শহরের নবীনবাগ এলাকার টেকলিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সামনে থেকে অধ্যাপক মোস্তফাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গোপালগঞ্জে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাবেদ মাসুদ ঘটনার সত্যাতা নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, রোববার (৭ মে) দুপুরে গোপালগঞ্জ সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ওই শিক্ষার্থীকে বাসায় ডাকেন অধ্যাপক মোস্তফা। পরে তাকে ধর্ষণ করেন তিনি।

এ ঘটনায় এদিন বিকেলে শিক্ষার্থীর মা বাদী হয়ে অধ্যাপক মোস্তফাকে অভিযুক্ত করে সদর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পরে অভিযান চালিয়ে রাতে শহরের নবীনবাগ এলাকার টেকলিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ওসি আরো জানান, গোপালগঞ্জ ২৫০-শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভিকটিম শিক্ষার্থীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার পর আইনি প্রক্রিয়া শুরু হবে।

এর আগেও ওই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে নারীঘটিত নানা অভিযোগ ওঠে। তবে লাজ-লজ্জায় কেউ থানায় অভিযোগ করেননি। এছাড়া রোভার স্কাউটের নারী কর্মীদের সঙ্গে নাচানাচির ভিডিও ভাইরাল হয়।