আইসিসির মাস সেরা খেলোয়াড় হলেন সাকিব

দ্বিতীয়বারের মতো আইসিসির মাস সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। গেল মাসে (মার্চ, ২০২৩) ব্যাট ও বল হাতে দারুণ পারফরম্যান্স করে আইসিসির এই পুরস্কার জিতে নেন তিনি। বুধবার আইসিসি তাদের ওয়েবসাইটে মাস সেরা খেলোয়াড় হিসেবে সাকিবের নাম ঘোষণা করে। এ যাত্রায় তিনি পেছনে ফেলেন নিউ জিল্যান্ডে কেন উইলিয়ামসন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের আসিফ খানকে। ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ হারলেও বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ রান ও উইকেট সংগ্রাহক ছিলেন সাকিব। তিন ম্যাচে ৪৭ গড়ে রান করেন ১৪১টি। আর ২৪ গড়ে উইকেট নেন ৬টি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একমাত্র জয়ের ম্যাচে ব্যাট হাতে ৭৫ রান ও বল হাতে ৩৫ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে হন ম্যাচসেরা। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৫৮ রান করার পাশাপাশি উইকেট নেন ১টি। প্রথম ওয়ানডেতে ব্যাট হাত ৮ রান করেন। আর বল হাতে নেন ১ উইকেট। টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দিয়ে প্রথমবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জেতান। এরপর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে ৯৩, দ্বিতীয়টিতে অপরাজিত ৩৯ রান করেন। এরপর পাওয়ার প্লেতে ৫ উইকেট তুলে নেন। ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মার্চ মাসে ১২ ম্যাচ খেলে সাকিব ব্যাট হাতে রান করেন ৩৫৩টি। আর বল হাতে উইকেট নেন ১৫টি। তাতেই তিনি আইসিসির মাস সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। দ্বিতীয়বারের মতো আইসিসির মাস সেরা পুরস্কার জিতে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘এই পুরস্কার জিততে পেরে আমি সম্মানিতবোধ করছি। আমি বিশেষজ্ঞ প্যানেল এবং যারা ভোট দিয়েছেন তাদের ধন্যবাদ দিতে চাই। আসলে এটা এমনই একটি স্বীকৃতি যেটাকে আমি খুব মূল্যায়ন করি। একটি নির্দিষ্ট মাসে অনেক অনেক ভালো ভালো ক্রিকেটারদের ভীড়ে বিশেষ পারফরম্যান্স করে সেরা হওয়াটা আসলেই দারুণ কিছু।’