আপনার সঙ্গে এখনো আমার ডিভোর্স হয়নি, শাকিবের উদ্দেশে বুবলী

বুবলীর সঙ্গে আর কখনোই কোনো কাজ করবেন না শাকিব খান। অনস্ক্রিন-অফস্ক্রিন কোথাও দেখা যাবে না তাদের। এক সাক্ষাৎকারে শাকিব খানের এমন বক্তব্যের পর বুধবার বেলা ১১টায় নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে একটি স্ট্যাটাস দেন চিত্রনায়িকা বুবলী।

সেখানে শাকিব খানের উদ্দেশে ‘মিস্টার শাকিব খান’ সম্বোধন করে বুবলী লিখেছেন, ‘আপনার বিশেষ কিছু সাক্ষাৎকার খুব অপরিচিত লাগে, কেমন যেন! বাস্তবে দেখা আপনার সঙ্গে মেলে না।’ বুবলী সরাসরি শাকিব খানকে বলেছেন, ‘শেহজাদের মুখের দিকে তাকিয়ে আপনাকে নিয়ে অনেক কিছুই বলতে চাই না, এড়িয়ে যাই; কিন্তু আমার ছেলের সম্মানের জন্য যদি মা হয়ে আমাকে কথা বলতে হয়, সময় হলে আমি অবশ্যই বলব।’

গত ঈদে শাকিব খান, সন্তান শেহজাদসহ সময় কাটানোর স্মৃতিচারণা করে বুবলী শাকিবকে প্রশ্ন করেন, ‘কিছুদিন পরপর কী উদ্দেশ্যে আপনি আপনার স্ত্রী (এখনো আপনার সঙ্গে আমার ডিভোর্স হয়নি) এবং আপনার সন্তানের মাকে নিয়ে আপত্তিকর ইঙ্গিতপূর্ণ কথা বলে সংবাদ করে ক্ষীণ চিন্তা প্রকাশ করেন?’

বুবলীর ভাষায়, ‘এগুলো কিন্তু আর্কাইভে থেকে যাবে এবং শেহজাদ কিছুদিন পর বড় হয়ে এসব দেখবে।’ স্ট্যাটাসের শেষে বুবলী লিখেছেন, ‘সবকিছুর ঊর্ধ্বে একজন মানুষ হিসেবে কিছু কথা বলতে চাই আপনাকে, ভালো ভালো সিনেমা করুন, তবে মনে রাখবেন, সুপারস্টারডোম জীবনের একটা অংশ কিন্তু এটাই পুরো জীবন নয়।’

গত বছর ২৭ সেপ্টেম্বর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রথমে বেবি বাম্পের ছবি পোস্ট করেন বুবলী। বেবি বাম্পের দুটি ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘মি উইথ মাই লাইফ, থ্রো ব্যাক আমেরিকা।’ এরপর গত ৩ অক্টোবর শাকিব খানের সঙ্গে তোলা তিনটি ছবি পোস্ট করে বিয়ের তারিখ প্রকাশ করেন তিনি। বুবলী ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘এখন পর্যন্ত আমার জীবনের স্মরণীয় দুটি তারিখ ২০/০৭/২০১৮ এবং ২১/০৩/২০২০।

প্রথমটি আমাদের বিয়ের তারিখ ও অন্যটি আমাদের সন্তানের জন্মতারিখ।’ সে সময় শাকিব খানও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন প্রথম আলোর সঙ্গে। তিনি বলেছিলেন, ‘শেহজাদ খান বীর আমার ও বুবলীর সন্তান, আমাদের ছোট্ট রাজপুত্র। শেহজাদের সঙ্গে আমি শুরু থেকেই ছিলাম, আছি এবং আজীবন থাকব।’

সন্তান জন্মের আগে বুবলী আড়ালে চলে যান। পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, ২০২০ সালের জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান বুবলী। ৯ মাসের আড়াল ভেঙে তিনি সবার সামনে আসেন। এরপর ব্যস্ত হয়ে পড়েন কাজকর্মে।