তিন অভিনেত্রীর সঙ্গে রাজের ভিডিও ফাঁস নিয়ে যা বললেন পরীমনি

ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়ক শরিফুল রাজের নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে সোমবার দিবাগত দেড়টার দিকে কয়েকটি ছবি ও ভিডিও ফাঁস হয়। ছড়িয়ে পড়া ছবি ও ভিডিওতে ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তানজিন তিশা, চিত্রনায়িকা নাজিফা তুষি এবং সুনেরাহ বিনতে কামালকে দেখা গেছে। এ ঘটনায় অভিনেত্রী সুনেরাহ অবশ্য নাম উল্লেখ না করে দোষারোপ করেছেন চিত্রনায়িকা পরীমনিকে। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে গণমাধ্যমের সঙ্গে সরাসরি কথা বললেন পরীমনি। তিনি বলেন, ‘আমি এখনো কিছু জানি না। আমার নাম উল্লেখ না করে কে কী বলেছে তা জানা নেই আমার। আমি স্বামী ও সন্তান নিয়ে বেশ ভালো আছি। এদিকে রাজের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে ছবি ও ভিডিও ফাঁসের ঘটনায় ওই রাতেই ফেসবুক ভেরিফায়েড প্রোফাইলে এক স্ট্যাটাসে সুনেরাহ বলেন, ‘রাজকে আমি ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে চিনি। সে আমার অনেক ভালো বন্ধু ছিল। তবে তার বিয়ের পর থেকে প্রায় যোগাযোগ ছিল না আমাদের। সেদিন একটি ডাবিং স্টুডিওতে দেখা হলো আমাদের। আমরা একসঙ্গে ছবি তুললাম। আমি জানি না, পুরনো বন্ধুর সঙ্গে একটি ছবি তোলা এমন কী অপরাধের বিষয়। তার স্ত্রী কোনো কারণ ছাড়াই পাগলপ্রায় এটা নিয়ে।’ শরিফুল রাজের স্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে বলেন, ‘আমাকে কেউ যদি ডিস্টার্ব করে তাহলে এবার আমি ব্যবস্থা নেব। এর আগে একবার এক নায়িকা প্রচলিত আইনের হুমকি দিয়েছে। এবার যদি কেউ আমাকে নিয়ে খোঁচায় তাহলে আমি ডিরেক্ট মামলা করব তার নামে।’ এর আগে এদিন দিবাগত রাতে সুনেরাহ বিনতে কামলা তার স্ট্যাটাসে আরও উল্লেখ করেন, ‘আপনারা যে ভিডিওগুলো দেখেছেন, (শরিফুল রাজের অ্যাকাউন্টে) সেগুলো পাঁচ বছর আগের। “ন ডরাই” সিনেমার সময়ের। সেই সময় আমরা এভাবেই মজা করতাম, আর প্রতিদিন এভাবে কথা বলার প্র্যাকটিস করতাম। কারণ, আমাদের (বিশেষ করে আমাকে) সিনেমার প্রয়োজনে গালি দিতে হয়েছে এভাবে।’ স্ট্যাটাসে সবশেষ তিনি আরও লেখেন, ‘দয়া করে এ বিষয় নিয়ে বাড়াবাড়ি করবেন না। আমি নিশ্চিত, ওর (শরিফুল রাজ) আইডি হ্যাকড হয়েছে। আর কে হ্যাক করেছে, আমরা সবাই সেটা জানি, প্রকাশ্যে হইচই করতে কোনো কারণ লাগে না যার (সেই করেছে)। এ ভিডিওগুলো যারা ছড়াবে, তাদের সবার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেব আমি।’