বুবলীর সঙ্গে আর সিনেমাও নয়, সাফ জানালেন শাকিব খান

ঈদে মুক্তি পেয়েছে শাকিব খান ও শবনম বুবলী জুটির ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’। দেশের প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি বেশ ভালো ব্যবসা করেছে বলে খবর। প্রশংসিত হয়েছে শাকিব-বুবলীর রসায়নও। তবে ব্যক্তিগত জীবনের মতো আলোচিত এ জুটির একসঙ্গে সিনেযাত্রা এখানেই শেষ। সদ্য দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সে কথা সাফ জানিয়ে দিলেন শাকিব খান।

প্রথম স্ত্রী চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের মতো দ্বিতীয় স্ত্রী শবনম বুবলীও তার জীবনে অতীত- মাস কয়েক আগে বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে এ কথা পরিষ্কার করেই বলেছেন অভিনেতা। এবার জানিয়ে দিলেন, বুবলীর সঙ্গে তিনি আর সিনেমাতেও জুঁটি বাঁধবেন না।

অর্থাৎ ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’-এর সাফল্যের পর যারা আশায় বুক বেঁধেছিলেন যে, শাকিব-বুবলীকে ফের একসঙ্গে পর্দায় দেখবেন, তাদের রীতিমতো হতাশ করলেন বাংলাদেশি কিং খান।

ওই সাক্ষাৎকারে শাকিব খান বলেন, ‘বুবলীর সঙ্গে আমি আর কোনো সিনেমায় কাজ করব না, এটা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। এমনকি চলচ্চিত্রের বাইরেও আমাদের আর কোথাও একসঙ্গে দেখা যাবে না। তার সঙ্গে আমার অধ্যায় পুরোপুরি শেষ হয়ে গেছে।’

নায়ক আরও বলেন, ‘আপনারা যদি ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ ছবির ‘সুরমা সুরমা’ গানটি দেখে থাকেন, তাহলে খেয়াল করবেন, একটা রোমান্টিক গান; তবে দুই শিল্পীর একটা দূরত্ব ছিল। কাছাকাছি দেখা যায়নি তাদের। আমার পুরো অভিনয় জীবনে এমনটা কখনো ঘটেনি। কারণ, আমি আর কোনো দিন বুবলীর সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতে চাই না।’

 

তবে ঢালিউডের এই শীর্ষ নায়ক এটা পরিষ্কার করে দেন যে, সন্তান শেহজাদ খান বীরের সৌজন্যে হয়তো তাদের একসঙ্গে দেখা যেতে পারে। অর্থাৎ, বীর প্রায়ই তার বাবা এবং দাদা-দাদির সঙ্গে দেখা করতে যায়। সেক্ষেত্রে বুবলীই ছেলেকে সঙ্গে করে নিয়ে আসেন। শাকিব খান জানান, এরকম পরিস্থিতিতে তাদের মাঝেমধ্যে একসঙ্গে দেখা যেতে পারে।

২০১৮ সালে গোপনে বিয়ে করেন শাকিব-বুবলী। ২০২০-এর মার্চে জন্ম হয় ছেলে বীরের। এসব খবর প্রকাশ হয় গত বছরের সেপ্টেম্বরে। এর কয়েকদিন পরই গুঞ্জন ওঠে, বিচ্ছেদ হয়ে গেছে শাকিব-বুবলীর। কদিন না যেতে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে সেই গুঞ্জনে সিলমোহর দেন শাকিব খান। জানান, তিনি আর বুবলী অনেক আগেই আলাদা হয়েছেন।

এদিকে, অপু বিশ্বাসের সঙ্গেও শাকিব খানের গল্পটা একই। ২০১৮ সালে তারা গোপনে বিয়ে করেন। সন্তান আব্রাম খান জয়ের জন্মও হয় গোপনে। ২০১৭ সালে এসব খবর প্রকাশের পরই অপুকে তালাক দেন শাকিব। তারও অনেক আগে থেকে এখন পর্যন্ত শাকিব-অপুকে আর একসঙ্গে কোনো সিনেমায় দেখা যায়নি। যাবেও না বলে দুই তারকা ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর।