মিশমিকে ‘ঝাঁটার কাঠি’ বলে কটাক্ষ

টলিউডের জনপ্রিয় খলনায়িকা মিশমি দাস। সোশ্যাল মিডিয়ায় সাহসী ছবি পোস্ট করার জন্য বিশেষ পরিচিতি রয়েছে তার। বিকিনিতে ছবি এর আগেও দিয়েছেন তিনি। কিন্তু তার সাম্প্রতিক বিকিনি পরিহিত ছবির জন্য এমনভাবে কটাক্ষ শুনতে হবে তা হয়তো নিজেও ভাবেননি তিনি। হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, মিশমির ওই পোস্টের কমেন্ট বক্সে নেটিজেনদের কটাক্ষের ঝড় বয়ে গেছে। ‘ঝাঁটার কাঠি’ থেকে শুরু করে ‘কঙ্কাল’– কিছুই বাদ যায়নি। গোয়ার বিচে কালো বিকিনি পরে ছবি দিয়েছিলেন মিশমি। ছবি দেখা যায়, কালো রঙের বিকিনিতে শরীরটা পিছনের দিকে এলিয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী। সমুদ্রের ফুরফুরে বাতাসে উড়ছে চুল। ছবির ক্যাপশনে লেখা ‘স্বর্গ বোধহয় এমনই হয়’। এই ছবিতে মিশমির শরীরের প্রতিটা হাড় যেন স্পষ্ট। পোস্টের কমেন্ট বক্সে একজন লেখেন, ‘অপুষ্টিতে ভুগছেন তো। একটু ভালো করে খাওয়া দাওয়া করুন’। অপর একজন লেখেন, ‘স্যরি, এটাকে ফিট বডি বলতে পারছি না। পুরো তালপাতার সেপাই। একটু খাওয়াদাওয়া করুন আপনি।’ আরেকজন লেখেন, “পেট ভরে খাওয়া দাওয়া করা উচিত। বডি শেমিং করা উচিত না, কিন্তু এরকম ফিগারকে ‘মাই বডি মাই চয়েজ’ বলে চালানো যায় না।” অনেকেই তাকে শরীরের যত্ন নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। অনেকে আবার মিশমিকে ‘ঝাঁটার কাঠি’, ‘কমজোর দেশি মুরগি’ বলতেও ছাড়েননি। একজন লেখেন, ‘এর এক্স-রে করার দরকার পড়বে না।’ যদিও এসব ট্রলিং-কটাক্ষকে কখনো গুরুত্ব দেননা মিশমি। তাই কোনোরকম পাল্টা জাবাব দেননি অভিনেত্রী। তবে এর আগে ট্রলিং প্রসঙ্গে মিশমি বলেছিলেন, ‘আমার কারো কথা গায়ে লাগে না। রোগা-মোটা যাই হোই না কেন মানুষজন কথা শোনাতে ছাড়বে না।’ চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে প্রেম ভেঙেছে মিশমির। দীর্ঘদিনের প্রেমিক বিশাল ভনের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর এখন ‘সিঙেল’ জীবনটা ‍উপভোগ করছেন তিনি।