রাজশাহীর নয়া জেলা প্রশাসকের সঙ্গে ইয়্যাস তারুণ্যের সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময়

রাজশাহীর নয়া জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শামীম আহমেদ এর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় করেছেন ‘তারুণ্যের জয় হবে নিশ্চয়ই’ এ প্রত্যয়ে এগিয়ে চলা রাজশাহীর উন্নয়ন গবেষণাধর্মী যুব সংগঠন ‘ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ-ইয়্যাস’র তরুণ প্রতিনিধিগণ। আজ বুধবার (১০ মে) বেলা ১২টায় জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট রাজশাহীর কার্যালয়ে তারা সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ইয়্যাস প্রতিনিধিসহ রাজশাহী বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শামীম আহমেদ মতবিনিময় করেন।

জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শামীম আহমেদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান রাজশাহীর উন্নয়ন গবেষণাধর্মী যুব সংগঠন ‘ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ-ইয়্যাস’র সভাপতি মো. শামীউল আলীম শাওন, সাধারণ সম্পাদক মো. আতিকুর রহমান আতিক, সদস্য ও ভঙ্গী নৃত্য শিল্পালয়ের সাধারণ সম্পাদক মো. রবিন শেখ।

মতবিনিময়কালে রাজশাহীতে কর্মরত সকল স্বেচ্ছাসেবী, তরুণ-যুব সংগঠকদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদানপূর্বক জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শামীম আহমেদ বলেন, “সমাজের তৃণমূল, অনগ্রসর, প্রান্তিক এবং পিছিয়ে পড়া সহ নিম্ন আয়ের ও সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠির কল্যানে সকল সংগঠনকে দল-মত ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। আপনারা নিজেরা সমাজের প্রান্তিক ও তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করেন ফলে আপনাদের চোখে সমাজের মানুষের নানা সমস্যা আর চাহিদাগুলো বেশি আসে। আপনারা সমন্বিতভাবে তাদের সহায়তা করতে পারলে করবেন আর যদি আপনাদের একার পক্ষে সহায়তা করা সম্ভব না হলে আমাকে বা আমাদেরকে জানাবেন আমরা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আপানাদেরকে সাথে নিয়ে তাদের সহায়তা করবো।”

প্রসঙ্গত, ‘তারুণ্যের জয় হবে নিশ্চয়’ এ প্রত্যায়ে স্বেচ্ছাসেবী গবেষণাধর্মী ও উন্নয়নমূলক যুব সংগঠন ‘ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ-ইয়্যাস’ রাজশাহীতে নিরাপদ সড়ক, নারী-শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ, পরিবেশ-প্রতিবেশ, প্রাণ-প্রকৃতি ও প্রাণবৈচিত্র্য সুরক্ষা, ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি সুরক্ষা, মানুষসহ সকল প্রাণের খাদ্য নিরাপত্তা ও মৌলিক চাহিদা নিশ্চিত, সাংবিধানিক মৌলিক অধিকার ও মানবাধিকার বাস্তবায়নসহ বৈষম্যহীন, বৈচিত্র্যপূর্ণ, আন্তঃনির্ভরশীল, অসাম্প্রদায়িক, সংবেদনশীল, বহুত্ববাদি এবং সহিংসতামুক্ত শ্রদ্ধাশীল মানবিক সমাজ বিনির্মানের লক্ষ্যে রাজশাহী তথা বরেন্দ্র অঞ্চলের স্থানীয় জনগোষ্ঠীর সমসাময়িক বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনার পাশাপাশি জাতীয় বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ ইস্যুগুলো নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।