রাবি ও ইবির মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) এবং ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) মধ্যে শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমে উৎকর্ষের লক্ষ্যে এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। রাবির জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান তিনি। মঙ্গলবার (২০ জুন) বেলা ১১টায় শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের কনফারেন্স রুমে এ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, রাবির পক্ষে কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. অবায়দুর রহমান প্রামানিক ও ইবির পক্ষে কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. মোসলেম উদ্দিন সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। পরে তাঁরা পরস্পরের সাথে স্বাক্ষরিত স্মারক বিনিময় করেন। স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারকের আওতায় উভয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শিক্ষক ও শিক্ষার্থী বিনিময় এবং যৌথ গবেষণা, প্রকাশনাসহ অন্যান্য একাডেমিক কার্যক্রম সম্পন্ন করার সুযোগ সৃষ্টি হবে। এ সময় ইবির কোষাধ্যক্ষ বলেন, ‘উচ্চশিক্ষার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে জ্ঞান সৃষ্টি ও বিতরণ। একাডেমিক ক্ষেত্রে রাবির সাথে ইবির সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। এই সমঝোতা কেবল বার্ষিক কর্মপরিকল্পনা মূল্যায়নকে ত্বরান্বিত করবে না সাথে সাথে শিক্ষা ও গবেষণাক্ষেত্রে গতি আনবে।’ ইবি উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘আমি রাবির একজন প্রাক্তন শিক্ষার্থী, বর্তমানে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত। এই দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হলো তাতে আমি আপ্লুত। এর ফলে দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে গবেষণালব্ধ তথ্য উপস্থাপন ও বিনিময় ত্বরান্বিত হবে যা শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে।’ রাবি উপ-উপাচার্য বলেন, ‘আজ এই দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য আনন্দের দিন। এই সমঝোতা মাধ্যমে দেশের দুই বড় বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে শিক্ষা ও গবেষণার ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। ‘ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে রাবি রেজিস্ট্রার অধ্যাপক মো. আবদুস সালাম, প্রক্টর অধ্যাপক মো. আসাবুল হক, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর আলম সাউদ, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে, অফিস অব দি ইন্টারন্যাশনাল এ্যাফেয়ার্সের সহকারী পরিচালক ড. শামস মুহা. গালিবসহ সংশ্লিষ্ট অন্যারা উপস্থিত ছিলেন।